শ্রমিকনেতা শাহ আতিউল ইসলামের মৃত্যু

বাম জোটের শোক

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : বর্ষীয়ান শ্রমিকনেতা, ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশন (টাফ) সভাপতি কমরেড শাহ আতিউল ইসলাম-এর মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় পরিচালনা পরিষদ। কমরেড শাহ আতিউল ইসলাম গত ২২ অক্টোবর, রাত ৩.৩০ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শেষ নিশ্বাঃস ত্যাগ করেছেন। করোনা আক্রান্ত হয়ে তিনি গত ২ অক্টোবর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। বিবৃতিতে বলা হয়, তার মৃত্যুতে এদেশের গার্মেন্ট শিল্পসহ সকল শ্রমিক ও শ্রমজীবী মানুষ একজন অভিভাবক ও আজীবন সংগ্রামী নেতাকে হারালেন। বাম গণতান্ত্রিক জোট গভীর শোক ও শ্রদ্ধার সাথে তার অবদান স্মরণ করছে এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সকল সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছে। শ্রমিকরা অভিভাবক হারাল: বর্ষীয়ান শ্রমিকনেতা, ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশন (টাফ) সভাপতি শাহ আতিউল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র। ২২ অক্টোবর সংগঠনের সভাপতি শ্রমিকনেতা মন্টু ঘোষ এবং সাধারণ সম্পাদক শ্রমিকনেতা জলি তালুকদার এক বিবৃতিতে বলেন, শাহ আতিউল ইসলাম এর মৃত্যুতে এদেশের শ্রমিক ও শ্রমজীবী মানুষ একজন অভিভাবক ও আজীবন সংগ্রামী নেতা হারালেন। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ প্রয়াত শ্রমিকনেতার পরিবার ও সহযোদ্ধাদের প্রতি আন্তরিক সহমর্মিতা প্রকাশ করেন। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, দেশের শ্রমিক আন্দোলনে তার অবদান সবসময় শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করা হবে। ছাত্র ইউনিয়নের শোক: ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশন (টাফ) সভাপতি কমরেড শাহ আতিউল ইসলাম-এর মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন। বিবৃতিতে বলা হয়, তার মৃত্যুতে এদেশের গার্মেন্ট শিল্পসহ সকল শ্রমিক ও শ্রমজীবী মানুষ একজন অভিভাবক ও আজীবন সংগ্রামী নেতাকে হারালেন। বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন গভীর শোক ও শ্রদ্ধার সাথে তার অবদান স্মরণ করছে এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সকল সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছে।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..